অস্ত্রসংগ্রহের স্মৃতি

Share Button

unnamed3

ফজলুল হক

কী হতভাগ্য আসন্ন বর্ষার দিন। এবার নিশ্চিত পুড়ে যাবে, দেহ
গৃহী মানবীরা জ্বলন্ত ভষ্মের ওপর দিয়ে হেঁটে যাবে
গত বছরের মতো মুখের গহবরগুলি, আর কিছু উত্তরদক্ষিণ চিহ্ন
আগুনের শীসে শুকনো দাঁড়িয়ে থাকবে নিঃস্বপ্ন প্রতিমা!

সেদিন গর্জন ভুলে মেঘ-রোদ্দুর হিমানীর ঘরে খিল দেবে
শোভা হাতে যার দাঁড়ানোর কথা ছিল, এখন সে পাথরছবি
চম্পক প্রহরে কোন রূপকথা কিংবা হতভাগ্য কোন বসন্তের পথ
এখন তাকে আর ফিরেও ডাকে না, বুকের ভিতর শুধু চম্পক নগর;

আবার জোৎস্নায়, সেই পথে একদিন বসন্তের পথ খোলা হবে
হয়তো ছাপ ছাপ রক্তবিন্দু লেগে থাকবে পায়ে, গায়ে–
যারা একদিন ভেবেছিলাম, আমরাই জাগিয়ে তুলতে পারি
আমূল ধ্বংসস্তুপের উপর দাঁড়িয়ে পায়ের দূরত্বের অলীক ছায়ায়
ভেবেছিলাম, আগুনের ঝর্ণায় ধুয়ে যাবে অন্য আরও অর্ধেক!

আজ মনে হয়, আবার বর্ষায় বুকের সব পাপড়ি খুলে খুলে
সমুদ্রস্নানে নেমে গেলে আবারও শিশুরা আতশবাজি পুড়াবে
মৃত চোখের পাতা ভেঙে উঠে আসবে অস্ত্রসংগ্রহের স্মৃতি
ডানার ঝাপটায় দিগম্বর অন্ধকারে খুটে নেবে আপ্লুত চুম্বন!

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

}
© Copyright 2015, All Rights Reserved. | Powered by polol.co.uk | Designed by Creative Workshop