আবদুল হাসিবের দুটি ছড়া

Share Button

agust-15082014

শ্যামল গ্রামের প্রান্তপথে হাঁটতে যখন তুমি
প্রভাত রবি উঠতো বুঝি তোমার শরীর চুমি
দুপুর বেলা গায়ে মেখে রোদের খরতাপ
প্রতিবাদী সংগ্রাম করে এগিয়েছিলে ধাপ
ভাবতে তুমি তোমার জাতি আছে বড় দুঃখে
স্বদেশ ভূমি স্বাধীন করলে থাকবে ওরা সুখে
মুক্তি মন্ত্রে বজ্রকন্ঠে তুমি দিলে ডাক
শক্ত হাতে অস্ত্র ধরলো মানুষ লাখে লাখ
অনেক রক্ত ব্যয় করে স্বাধীন হলো দেশ
ভাবলে তুমি জাতির দুর্ভোগ এবার হলো শেষ
উদারতায় ক্ষমা করলে মীরজাফরের বংশ
সুযোগ বুঝে ছুবল মেরে সমূলে করলো ধ্বংস!

——দুই———-

বাঙলীদের জীবনে যখন
অমানিশা অন্ধকার,
ফরিদ পুরের টঙ্গী পাড়ায়
জন্ম হলো তখন তাঁর।

জাতির জন্যে জেল জুলুম
কত সয়ে গেলেন,
বিনিময়ে জাতির পিতা
গুলি বুকে পেলেন।

জাতির মাঝে বসত করে
মীর জাফরের বংশ,
সুযোগ পেলেই ওরা করে
দেশ ও জাতির ধ্বংস।

পচাত্তরের পনেরোই আগষ্ট
হত্যা হলেন মিত্র,
বুকের রক্তে সিক্ত হলো
বাংলার মানচিত্র।

 

পাঠকের মতামত

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

}
© Copyright 2015, All Rights Reserved. | Powered by polol.co.uk | Designed by Creative Workshop