এম মোসাইদ খানের কবিতা

Share Button

hqdefault

দক্ষিণের আকাশ

দাঈমার কুলে বসে খণ্ড জীবনের গল্প বলতে গেলে
দক্ষিণের আকাশে চোখ পড়ে যায়
হুমড়ি খেয়ে পড়ি মৌরসী ভুমে,
যেখানে চাঁদের জোয়ারে পোড়ে খড়ি মাটির ঘর
মেঘের পাঁজরে ফোটে জোস্নার ফুল,
সনাতন বৃক্ষের ছায়ায়
বাতাসে সুগন্ধ বিলায় কেওয়াবন।
ঘাসফড়িং ডানায়
মুক্তার মতো ঝলমল করে নির্মল কবিতার শরীর ।

যেখানে পিঠার নকশীতে স্পষ্ট মায়া
কৃষাণীর আচঁল চুষে চাষা কপাল,
একই থালা ভাত পরস্পর মুখী
তৃষ্ণা খসে পড়ে, নিরামিশ চোখ যেনো যাদুর কাঠি।

যেখানে নদী আর নারী সমানে সমান
সৌখিন যুবা বুকে সাঁতার কাটে,
জরির ফিতায় গেঁথে রাখে হৃদয় কাবিন
সূচীর বাইরে, মানুষ ফলকে অংঙ্কিত হয় প্রেম তিলক।

যেখানে আজও অগ্নি শিরায়
যুদ্ধে দামামা বাজে ঝড়ের দিনে
ক্ষোভের পলি ভাঙ্গে যতো পাথরের হাড়
মাটি আর মানুষ এক হয়
বদলায় দিনরাত, গর্বিত মস্তকে সোজা করে বাঁক।

যেখানে ফেরার দগদগে ক্ষত লক্ষ ফেরারী বুকে
প্রতিক্ষায় প্রহর গুনে কেই না কেই।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

}
© Copyright 2015, All Rights Reserved. | Powered by polol.co.uk