ওয়ালি মাহমুদের কবিতা ‘শোকাবহ ১৫ আগস্ট’

Share Button

download

যুগ শতাব্দী ধরে আমাদের এই ভূ-খণ্ড দখল হয়েছে বারবার। শোষনের বিরুদ্ধে লড়েছে বাঙালি- করেছে প্রাণ সংহার।

১৫ই আগস্ট, খুন হতে লাগল বাংলাদেশ। রক্তের ফোটায় জমাট বাঁধতে বাঁধতে ভেসে যেতে লাগল- স্বাধীনতার ইতিহাস, শহীদদের ঘরবাড়ি, কবরস্থান। দেশ- পথ ভূল হতে হতে যেতে থাকল উল্টো দিকে। মীরজাফরদের গন্থব্যে যেখানে। জনকের রক্ত মাড়িয়ে যারা মেতেছিল তাণ্ডবে, তারা নিকৃষ্ট কীট। ঘৃণ্য, অতি নগন্য।

হে পরম পিতা- তোমার রক্তে ভিজেছে এই মাটি, কেঁপেছে বাঙালির শিকড়। শ্যামল সবুজের স্বদেশ যেন শোকার্ত নতমুখ। অন্ধকারে ঢাকা মেঘের বিষন্ন মগ্নতায় ঢেকেছিল বাংলাদেশের আকাশ। জাতির পিতা হারানোর ব্যথা- কষ্টের নদী হয়ে সাগর হয়ে রয়। ভোরের আজানের পর- বাগানের সবচেয়ে সুন্দর ফুলটি সেদিন ঝরে পড়ে গেল, দু:খে। মুক্তি পাগল মানুষের হৃদয় থেকে ওঠে ‘জয় বাংলা, জয় বঙ্গবন্ধু’ শ্লোগান। কতশত সংগ্রাম, বঞ্চনা, ত্যাগ পেরিয়ে এসে প্রত্যয়ের প্রতীক, হে মুজিব। বাঙালি জাতি যুদ্ধ করেছে তোমারই নামে। চাওয়া পাওয়ার উর্ধ্বে ওঠে সমার্থক শব্দনাম। শোক হয় শক্তির মিছিল।

চেতনার মানস পটে আঁকা এ ছবি। স্বাধীনতার রক্ত লাল কবি’র রবি। ভালবাসার অখণ্ড সবুজে আমি ছুঁয়ে দিই তোমার বিস্তৃত অবয়ব। রাত দিন- এই বাংলার পথে প্রান্তরে, ভাষার উচ্চারণে থাকে শ্রদ্ধা’র কলরব।

ষড়ঋতুর এই শাশ্বত বাংলার পুরো মানচিত্রই তোমার দেহ। হাজার বছর পরেও জনকের কথা বলে যাবে মানুষের পিতামহ।

পাঠকের মতামত

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

}
© Copyright 2015, All Rights Reserved. | Powered by polol.co.uk | Designed by Creative Workshop