আহমদ ময়েজ

লক্ষীর সাজ

আহমদ ময়েজ আজ রাত্রি নুয়ে আসে পাললিক হর্ষ ধ্বনি কতদিন করিনি রূপন কালোমৃত্তিকার বুকে। নদীফেটে হেসে ওঠে কুমির ছানা মাটির কান্না কোনোদিন করোনি শ্রবণ। অমৃতপ্রাণ ডেকে যায় পাহাড়ের তলদেশ প্লাবিত করে, নোনাজল আদেশক্রমে জেগে ওঠো প্রাজ্ঞস্রোত নিত্যি নিত্যি পান হোক অমৃতছায়া। যে পারো ভজিয়ে দিও এমন কুলাচার। পাতকুয়া নিবাসী এক, ব্যাঙের দরদ ছিন্নকর্ণ শুনে প্রাণের বিকিরণ। দ্রাঘিমায় শুয়ে থাকো মহাচিন্তক কালোতিল এঁকে দেবো লক্ষীর সাজে।

Read More »

আনন্দঘন দিন

আহমদ ময়েজ পঞ্চঘোর কাটে না গো সাঁই এইবার খোলে দাও দানের সঙ্গীত নিরাকার হাত হোক বন্ধু-প্রতীম। মাত্ওয়ারা দিন বড় পেরেশান লাগে প্রভু! আমি দিনহীন; শূন্য হাত কেবল বন্ধক রাখি মানুষের লাগি। যেদিন মরমকথা গেয়ে যা পথের ফকির ‘তওরাত-জবুর-ইঞ্জিন-কোরান হিন্দুলোকের পদ্ম-পুরাণ একই আদমের সন্তান, একই গঠন’ অবাক শূন্যতায় ভাবি, পাতকির এতো কথা রচিল কেবা কোন মহাজন? নতুন সূর্য আসে প্রতিদিন, অমানিশা যায় না গো সাঁই এখনও কর্পোর ঘ্রাণে অনিন্দিতা হাসে স্পর্শ করেনি আজও বেদনার নীলাভ পাথর। দয়িতার হস্ত ধরে ফিরে আয় ...

Read More »
}
© Copyright 2015, All Rights Reserved. | Powered by polol.co.uk | Designed by Creative Workshop