মুজিব ইরম

শ্রী ইরম মিষ্টান্ন ভান্ডার

মুজিব ইরম এই শীতে তালেব মিয়ার চায়ের দোকান থেকে সকল বাটারবন আমি নিয়ে আসতে চাই…খালিশপুরের মাঠে যদি ওয়াজ হয়, মেলা হয় বাড়ন্তির মাঠে, রাধানগরে যদি টানা হয় রথ, বান্নি বসে খেয়াঘাটে, আখাইলকুড়া বিলে…আমিও এবার মিষ্টান্নের দোকান দেবোই দেবো…আমার খোয়াব থেকে একে একে ঝরে যাচ্ছে সমস্ত খায়েস…অন্তত এবার আমি মহাজন হবো, নিজের নামের বাতি জ্বালাবোই খেয়াঘাটে, বুধবারী বাজারে…তোমার নামেই আমি তুলে রাখি প্রথম চালান…পুঞ্জিপাত্তা হারানোর ভয় আমার কি আর আছে?  

Read More »

শ্রী ইরম ভেরাইটিজ স্টোর

মুজিব ইরম তুমি খামোকাই খোটা দিচ্ছো…আমার রক্তের ভিতর খলবল করে তেজারতি…লাভ-লোকশান নিয়ে আমাকে আর বিমূখ করো না…এই মনোহারি দোকানের চাবি বেঁধে রাখো আঁচলের গিঁটে…সেই কবে দোকান খুলেছি আমি…সুলভে বিকাই আয়ু…দিবানিশি নানা পদে ভরে রাখি ঘর…হায়, এই সংসার তবু কেনো আজও আপন হলো না!

Read More »

চন্দনচারা

মুজিব ইরম সেই কবে লাগিয়েছি চন্দনের চারা একদিন ফুটাবে সে ঘ্রাণ এই মর্মে প্রতিদিন তিলে তিলে জাগল হচ্ছে সে স্বজনেরা গালমন্দ করে কেনো আমি লাগাচ্ছি না সহজেই বেড়ে-ওঠা গাছ কী দরকার এতো চন্দনের ঘ্রাণ কী দরকার অপেক্ষা এতো এক জীবনে না-দেখা ফল কাজের অর্জন! তবুও খায়েস বাড়ে রুয়ে যেতে চন্দনের চারা তুচ্ছ করে নগদ ফলন কোনো একদিন যদি বেড়ে উঠে ফোটায় সুঘ্রাণ এই ভেবে রাত্রি জেগে স্বজন হারাই, অপেক্ষা বাড়াই রুয়ে রাখি ধীরে-বাড়া চন্দনের চারা, ক্ষয় করে সোনার তনাই।  

Read More »
}
© Copyright 2015, All Rights Reserved. | Powered by polol.co.uk | Designed by Creative Workshop