স্বাধীনতা দিবস

স্বঘোষিত ইশ্বর একবার মানুষের কাতারে দাঁড়ান

জুয়েল রাজ বাংলাদেশের ইতিহাসে সেনাবাহিনী নিজেদের এমন এক উচ্চতায় নিয়ে গেছে যে তাঁদের দিকে কখনো কোন বিষয়ে আঙুল তোলা যাবেনা। দেশপ্রেমিক সেনাবাহিনী আমাদের অহংকার আমাদের গর্ব। বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধ্ব, সংবিধান, জাতির জনক, জাতীয় সংসদ, আদালত, বিচার ব্যবস্থা সব নিয়ে বাক স্বাধীনতা আছে। ইচ্ছামত বিতর্ক হচ্ছে প্রশ্নবিদ্ধ্ব করা হচ্ছে। কিন্তু কোনভাবেই সেনাবাহিনী নিয়ে নয়। আর সেই সুযোগে বারবার বাংলাদেশের কাঁধে সাওয়ার হয়েছে জলপাই রঙের ভূত।জাতির জনকের হত্যাকাণ্ড থেকে শুরু করে জিয়াউর রহমান এর ক্ষমতা দখল। মুক্তিযুদ্ধ্বের মূল স্তম্ভকে ভেঙ্গে দিয়ে পাকিস্তানিকরণের দিকে ...

Read More »

শেখ রানার কবিতা

কবিতার পোস্টকার্ড সত্য বচন বলার প্রহর শেষ ঘ্রাণ বিগত আমার দেশের মাটি নগর পথে দেয়ালগুলো চুপ নগর পথে শব্দ শুনে হাঁটি। শব্দগুলো বেহাত হয়েও আছে আছে বলেই ওদের সাথে দেখা যে সব কথা বলব ভেবেছিলাম সে সব কথা আমার মতই একা। একা হয়ে কদিন বেঁচে থাকবো ট্রেন ছুটেছে ঝাঁপটা দামাল হাওয়া এক পলকে বুকের ভেতর ঘাই মুহূর্ত’পর ঘুমিয়ে পড়ার ধাওয়া। স্বপ্ন ধাওয়া, আমায় তো ছাড়ছে না তুমি আমায় যাও ছেড়ে যাও চলে যাবার আগে কবর খুড়ে দিও স্ববিরোধী মানুষ কথা ...

Read More »

লুৎফর রহমান রিটনের ছড়া

অন বিহাফ অব শেখ মুজিবুর আমি মেজর জিয়া ইন্টারেস্টিং বিষয় থাকে ছেলের হাতের মোয়াতে ছেলের হাতের মোয়া খাওয়ার চাইনি সুযোগ খোয়াতে অস্ত্র ছিলো বোঝাই, খালাস করতে গেলাম সোয়াত-এ চেয়েছিলাম পাকিস্তানের পক্ষে মাথা নোয়াতে মুক্তিপাগল মানুষগুলোর অন্যরকম ছোঁয়াতে বদলে যেতে বাধ্য হলাম, বাবা মায়ের দোয়াতে— অটোমেটিক ঠাঁই পেয়েছি ইতিহাসে ‘ধোঁয়া’তে! যদিও জানি স্বাধীনতা ছেলের হাতের মোয়া না স্বাধীনতা অস্পষ্ট আবছা এবং ধোঁয়া না । ‘একটি জাতির জন্ম’ লিখে সেটাই বলতে চেয়েছি আমার যেটুক প্রাপ্য আমি বেঁচে থাকতেই পেয়েছি। এখন দেখছি মরার ...

Read More »

দিলু নাসের এর স্মৃতিকাব্য

যতোবার চোখ রাখি স্মৃতি জানালায় কতো মুখ, কতো চোখ, ডাক দিয়ে যায়। স্মৃতির ভেতরে আছে অনেক স্মৃতি কিছুটা রোদেলা আর কিছু ছায়া বীথি। আছে রোদ,আছে মেঘ, আরো আছে ঝড় চন্দ্র তাঁরায় ভরা স্মৃতি চত্বর। আছে আশা, ভালবাসা, আছে বিশ্বাস নানা রঙে ঝলমলে স্মৃতির আকাশ। আছে প্রেম, অভিমান, হতাশা ও ক্ষোভ তবু দেই বারবার স্মৃতিজলে ডুব। কারণে অকারণে তাই যায় চলে যখন তখন মন,স্মৃতির অতলে। মুক্তো মানিক আর প্রবাল শৈবাল ঝিনুক গহ্বরে ডুবে, আছে মহাকাল। তাইতো অবসরে, স্মৃতির দড়ি ধরে আমিও ...

Read More »

আবু তাহের এর ছড়া

আল বদর নেতা বড় নেতা হবো বলে দল বেঁধেছি ভাই একটু আধটু ভাষণ দেই লোকে চিনুক তাই। দৌড়াদৌড়ি বেশি করি সবাই কর্মী বুঝুক বড় নেতা হতে হলে এটাই আসল সুযোগ। হরতালেতে সামনে থাকি ভাঙতে মোটর কার আমি যে ভাই এক সময়ে ছিলাম রাজাকার। মুক্তিসেনা মারছি কতো একাত্তরের যুদ্ধে সেই কথাটি গোপণ রেখে আজকে সবার উর্ধ্বে। আলবদর-ছিলাম বলে বলতে সাহস কার? আমি এখন দলের নেতা নইতো রাজাকার।

Read More »

উদয় শংকর দূর্জয় এর কবিতা

কলম ও কালের খেয়া পাল্টে গেছে আমাদের জীবন জলছবি বাতায়ন ফিকে হয়ে গেছে অর্জনের সবকটি রং ধূসর ছায়ায়। জাতি পার করছে বিভীষিকাময় ক্রান্তিকাল। এতোটি বছর পরেও হেরে যায় মুক্তি সন্তানেরা, হেরে যায় রাত-জাগানিয়া পাখি। মৃত্যুশঙ্কায় সিকদাররা ডায়েরির পাতা খুঁড়ে আবিষ্কার করে কঠিন পারদ খাঁচা। সিকদাররা হেরেছিল একাত্তরে, হেরে যাচ্ছে দুই হাজার ষোলতে তবু পঙ্গু স্বপ্ন নিয়ে যন্ত্রণার আকাশ পাড়ি, মেঘলা নামে ফরিদপুরের ভূ-মণ্ডলে। বিত্তজনেরা ভেঙে দেয় কালের খেয়া স্তব্ধ করে দেয় আস্তিনে জমা চৌদ্দটি হৃৎপিণ্ডের প্রতিবাদী মিছিল। অধিকার নয় টিকে ...

Read More »

হাসান মাহমুদ’র কবিতা

এ মাটির তরে যাঁরা ব্রিটিশ ঐ বেনিয়ারা করে গেলো ভাগ দুই পাড়ে দুই দেশ দিলো এক করে, জুলুম-শাসনে পাকি পেলো অধিকার চাল ডাল সবকিছু নিতে ভাগ করে। মায়ের মুখের ভাষা কেঁড়ে নিতে চায় নিতে চায় কেঁড়ে এই জনতার ভোট, সবুজ ধানের ক্ষেত আর নদী নালা সবকিছু কেড়ে নিতে করে হরিলুট। জনতার-ই বুকে জ্বলা আগ্নেয়গিরি দাবানলে রুপ নিলো বাংলার ঘরে, লক্ষ প্রাণেরও কথা এল সুর ধরি বাংলার বীর শেখ মুজিবের স্বরে। রক্তেরও নদীতে বহে সম্ভ্রম গ্লাণি- তিরিশ লক্ষ দেহ হলো বলিদান, ...

Read More »

লুৎফুর রহমান’র পঁচিশে মার্চের দুটি ছড়া

এক. একাত্তরের পঁচিশে মার্চ নিকষ কালো রাতে পাকহানারা হত্যা চালায় রাজাকারের সাথে। অপারেশন সার্চে তারা হত্যা চালায় শুরু ঢাবি মারে বুদ্ধিজীবী দেশ জাগানি গুরু। নিকষ কালো রাতে ছিল রাক্ষুসেরই ছায়া নয় মাসে স্বাধীন হলো বুকে দেশের মায়া আড়াই লাখ মায়ের ইজ্জত প্রাণ তিরিশ ভায়া। দুই. একাত্তরের নিকষ কালো পঁচিশে ওই মার্চে পাকহানারা হত্যা চালায় অপারেশন সার্চে। দীর্ঘ ন’মাস পাকহানাদার তিরিশ লাখ মারছে সঙ্গে ছিল সব রাজাকার যুদ্ধে যে না পারছে। অবশেষে বীর বাঙালির কাছে তারা হারছে লড়াই টা সেই শুরু ...

Read More »

মোসলেহ্ উদ্দিন বাবুল’র ছড়া

আমরা এখন কুকুর এখন লেজ নাড়ায় না, লেজে নাড়ায় কুকুর, সাগর চুরি নিত্য ব্যাপার, তুচ্ছ এখন পুকুর ! ‘বাঁচাও’ বলে যতোই চেঁচাও, কানের মাছি নড়ে ! মুরব্বীরা রঙের মেলায়, কেউ থাকেনা ঘরে! ঘরের মাঝে শ্মশাণ-ভিটে আমরা সেথায় থাকি, মালিকানার শরীকরা সব এখন শীতের পাখি ।

Read More »

আজিজ ইবনে গণি’র ছড়া

স্বাধীনতার কথা চোখটা তোর বন্ধ রাখ মুখটা কর সেলাই, কিছুই বলার নাই রে তোর করি না যাচ্ছে তাই। সত্য কথা লিখলে পরে কি করবো আমি তোরে বোঝাবার ভাষা নাই কাটবো রে হাত তাই। আমার জুলুম-অত্যাচার যাবে রে তুই করে প্রচার দেখাবে আংগুল উঠাই এই স্বাধীনতা চাই ? না রে না, তা হবে না এ ধরাতে পা রবে না বলে আমি যাই কোনো উলটো চলা নাই।

Read More »
}
© Copyright 2015, All Rights Reserved. | Powered by polol.co.uk | Designed by Creative Workshop