কবিতা

সাবিনা আনোয়ারের কবিতা ‘জেগে উঠো মৃওিকার স্বাধীনতায় বিশ্বাসীরা’

পিতা এনেদিলেন স্বাধীনতা, শৃংখলিত বাঙ্গাঁলী জাতির। মুক্তির চেতনায় উদ্বুদ্ধ সাড়ে সাত কোটি মানুষ স্বাধীনতার মর্ম বুঝেছিল তারা, পরাধীনতার যাঁতাকলে নিষ্পেসিত দুইশ তেইশ বছরের গোলামীর জিঞ্জির তোমার বজ্রকঠিন নেতৃত্বে, ছিন্নভিন্ন হয়ে পড়েছিলো পদতলে। মুক্তির উন্মাদনায় বিভোর ছিলো যারা, পনেরই আগষ্ট – পাকিস্তানী নরঘাতকদের পদলেহিত কুকুরদের দল নির্মম ভাবে হত্যা করলো তোমাকে স্বরিবারে, ওরা পাসন্ড বর্বর, বাঁচতে দিলো না – তোমার মত এক জন মহানায়ককে, ছোট্ট শিশু রাসেল আর গর্ভবতী মহিলা রেহাই পেলোনা ওদের নিষ্ঠুর রোষানল থেকে। দেখেছি আমি বএিশ নাম্বারে প্রতিটি ...

Read More »

মাশূক ইবনে আনিসের ‘শোক মর্শিয়া’

পদ্মার জল করে টলমল পাখিদের ঠোঁটে গান অবিরল নদীবুকে বাঁজে জলকলতান, শুধু তুমি নেই বঙ্গবন্ধু – শেখ মুজিবুর রহমান। তোমার বাংলা তোমার মানুষ সব কিছুই ঠিকঠাক আছে, তোমার দেশের স্বাধীন আকাশে ডানামেলে সব পাখিরা নাচে, ভোরের দুয়ারে বেঁজে ওঠে শুনি শিশুদের কলতান, শুধু তুমি নেই বঙ্গবন্ধু – শেখ মুজিবুর রহমাম। আমরা তোমায় ভুলিনি কেহই এ জাতির তুমি পিতা, শ্রদ্ধায় তুমি, ভালবাসা তুমি স্বদ্যজাত কবিতা।

Read More »

সাইদুর রাহমানের কবিতা ‘রক্তমাখা ১৫’ই আগস্ট’

রক্তমাখা ১৫’ই আগস্ট, হৃদয়ের এক শেষ ঘৃণা। ঘৃণিত সেই ঘৃণ্য জাত যেখানে যাদের দ্বারা নিভেছিল আলো, স্তব্ধ হয়েছিল স্বাধীনতার হাত। হৃদয়ের এক শেষ ঘৃণা ঘৃণিত সেই ঘৃণ্য জাত, যেখানে যাদের দ্বারা জাতি হারিয়েছিল বাংলার শেকড় সংগ্রামী নেতার উজ্জ্বলিত বাত। হৃদয়ের এক শেষ ঘৃণা ঘৃণিত সেই ঘৃণ্য জাত যেখানে যাদের দ্বারা শোকাবহ বাংলার মাট,ঘাট হাট। রক্তমাখা ১৫’ই আগস্ট, জাতি কেঁদেছিল,কেঁদেছিল বাংলার আকাশ বাতাস। কেঁদেছিল সংগ্রামী নেতার হৃদয়ের আবাস। একটাই নক্ষত্র যার গতি হাজারো ধূমকেতুর উর্ধ্বে, যার দ্বারা জন্ম এই ভূমি যার ...

Read More »

আলাউদ্দিন আদরের কবিতা

তুমি ছিলে প্রতিবাদের এক মূর্ত প্রতীক তোমার কণ্ঠেই শক্তি পেতে ক্লান্ত পথিক! ওরা তোমার যে নাম কেটে দিল ঢাবির খাতায় বাঙ্গালী সে নাম লিখে নিল হৃদয়ের পাতায়! তুমিই দেখিয়েছিলে একাত্তরে স্বাধীনতার স্বপন প্রতিবাদের বীজ এ শ্যামল ভূমে করছো বপন! সন্ধিতে ব্যর্থ পাকিরা তোমায় বন্দি করে জেলে মুক্তির সংগ্রামে লক্ষ জনতা বুকের রক্ত দিল ঢেলে! অবশেষ, বিজয়ে সূর্য ঊদিত হল বাংলার আকাশে লাল সবুজের পতাকাটি তুলে দিল সবে তোমার সকাসে! তোমায় ঘিরে ছিল কতক প্রতারক চোরের দল চুয়াত্তরের দুর্ভিক্ষে দেখেছি তোমার ...

Read More »

ফকির ইলিয়াসের কবিতা ‘অক্ষরের মায়া’

এখানে আলোর মেলা, ডাকে এক সবুজ বিভায় অমর মাটির বুকে জেগে থাকে মুজিবের নাম কে এসে দাঁড়ায় হাতে নিয়ে সেই চিত্র প্রণাম আমি দেখি ভোর থেকে ঢেউ উঠে ঝড়ের সভায় । আর লিখে লালে লালে প্রাণপ্রিয় অক্ষরের মায়া আগস্টের মধ্যরাতে ঘাতকের ঘন-কালো চোখ তছনছ করেছিল যে স্মৃতি-স্বপ্ন প্রমুখ কেউ কি পেরেছে দিতে, মুছে সেই মহীরুহ ছায়া। প্রজন্ম আজও তো খুঁজে আন্তর্জালে তাঁর কররেখা মার্চের মহাকাব্য পড়ে পড়ে নদী যায় গন্তব্যে তার মুক্তির আলো খুঁজে মানুষেরা- দিশা’র প্রকার চন্দ্রও অনুভবে দেয় ...

Read More »

চন্দ্রশিলা ছন্দা’র দুটি কবিতা

১. মুজিব মানে বাংলাদেশ আগষ্ট এলে শোকের মাতম আগষ্ট কেন আসে আগষ্ট এলেই বাংলা আমার চোখের জলে ভাসে আকাশ ভাঙে বুকটি যে তার শরৎ না কি তাই আকাশ কাঁদে বাতাস কাঁদে আমার মুজিব নাই! মুজিব আছে ফুলের গন্ধে সূর্যোদয়ের লালে মুখরিত পাখির গানে মিষ্টি খুকির গালে ভোরের বাতাস সর্ষে ক্ষেতে ছড়ায় হলুদ হাঁসি মুজিব মানেই স্বদেশ আমি-দেশ কে ভালোবাসি ২. আশা ব্যাক্ত হরিধানের গল্পটা মনে আছে? পঙ্খানুপঙ্খ আমারও মনে নেই তবে সারমর্ম টুকু অবশ্যই এক খণ্ড আমনের জমিতে মাটি ফুঁড়ে ...

Read More »

শুভ্রামনি’র কবিতা ‘শ্রদ্ধাঞ্জলি’

হৃদপিণ্ড চিরে! লাল রক্তিম পলাশের আল্পনায় কিংবা দেহের বিন্দু বিন্দু রক্ত কণা দিয়ে হে মানব- তোমাকে জানাই শতকোটি শ্রদ্ধাঞ্জলি। কী লিখব তোমাকে নিয়ে আজ! কী লেখা যায়? সবই তো ১৫ই আগস্টে দিয়েছিল সীমারেরা রক্ত গঙ্গার বুকে জলাঞ্জলি। আজি- আকাশে বাতাসে ধ্বনিত বিলাপ রোল!!! এতো রাসেল এর আত্মার তীব্র প্রতিধ্বনি! যে ছিল শিশু বুক ছেড়া ধন মা-বাবার নয়নমণি। শত কষ্টের তীব্রতায়য়,সুরের মূর্ছনায় করুণ হাহাকার! ক্রন্দনে! চিৎকারে কবরখানিও আজ থর! থর! কম্পিত গোটা বিশ্বকে আজ জাগিয়ে দেবো ওরা হয়ে যায় যেনো চমকিত! ...

Read More »

অন্তরিপা রুপু’র কবিতা “বঙ্গবন্ধু’

তুমি হলে জাতির পিতা মানতে যারা না চায় এদেশ ছেড়ে কেন ওরা ঐদেশে না যায় । তুমি ছিলে স্বাধীন দেশের স্বাধীন স্বপ্নদ্রষ্টা দেখেছিলে স্বপ্ন গড়বে তুমি সোনার এই দেশটা। তুমি ছিলে পিতা সমান আমরা তোমার সন্তান পেলাম মোরা স্বাধীনতা এ তোমারি অবদান । হলে তুমি বঙ্গবন্ধু চটে উঠলো হায়না জোর করে ভরলো তোমায় পাকিস্তানের ঐ জেলটা। রক্তে রাঙা হল দেশ তুমি হলে রক্তাক্ত পেলাম আমরা বাংলাদেশ আর পৃথিবীতে মানচিত্র । পাকিস্তানী দোসর ওরা ক্ষিপ্ত হলো বেশ এই রেশে করলো খুন ...

Read More »

সুখ-দুঃখ

তামান্না আক্তার আমরা সবাই শুধু সুখটাকে চাই আসলে কি তা আমরা পাই হাজার সুখের বাঁকে একটি দুঃখ লেগেই থাকে। যদিও সুখ ক্ষণস্থায়ী দুঃখ সে তো চিরস্থায়ী সুখের মাঝে কি বা পাওয়া যায় সুখ শুধুই সুখ কিন্তু দুঃখ সেতো অদ্ভুত অনুভূতি তাই সুখ থেকে ফেরাও মুখ দুঃখের মাঝে আছে কান্না,বেদনা আছে অনেক যন্ত্রণা তাই বলে কি দুঃখকে নিজের করে চাইব না সুখকে পেতে হলে জীবনে দুঃখকে হাসিমুখে বরণ করতে হবে এই মনে দুঃখ থাকুক ইহকালের সুখ আসুক পরকালের।।

Read More »

আমাদের মন

তামান্না আক্তার আমরা মুখে যা বলি সবাই কি তাই করি? মনের কথা এক মুখের কথা আরেক এরপরও করি আশা কারও প্রতি আমাদের থাকেনা ভালোবাসা। এটাই যদি হয় জীবন শান্তি আসবে কখন সবাইকে করতে হবে সম্মান তবেই হবো আমরা মুসলমান। ছাড়তে হবে গর্ব অহংকার করতে হবে এবাদাত আল্লাহ তা’লার।

Read More »
}
© Copyright 2015, All Rights Reserved. | Powered by polol.co.uk